YouTube

YouTube এ আপনি কি নতুন চ্যানেল খুলতে চাচ্ছেন দেখে নিন কিভাবে কাজ করলে আপনিও সফল হবেন।

আসসালামু আলাইকুম। কেমন আছেন আপনারা সবাই? আশা করি সবাই ভাল আছেন। আমিও ভালো আছি।

আমরা অনেকেই চাই YouTube চ্যানেল খুলতে YouTube চ্যানেল খুলে অনেকেই সফল হয়েছে। আজকে আমি YouTube চ্যানেল খুলে কিভাবে কাজ করলে আপনি সফলতায় পৌছাবেন তাই নিয়ে একটি টিউটোরিয়াল লিখবো।

টিউটোরিয়াল টি কিছু ধাপের মাধ্যামে সাজানো হলো। প্রত্যেক টি ধাপ আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ তাই খুব মনোযোগ দিয়ে পরবেন। আছা করি ভালো ফলাফল পাবেন। তো চলুন শুরু করু।

১ম ধাপ

১ম ধাপ বুঝতেই পারছেন কতটা গুরুত্বপূর্ণ। তাই এই ধাপে নিজেকে শান্ত রাখুন এবং চোখ বন্ধ করে ভাবুন অবশ্যই আপনি পারবেন। সবাই পারলে আপনি কেন নয়। YouTube চ্যানেল পরিচালনা করা হলো একটি ধৈর্য এর কাজ। তাই আপনাকে প্রবল ধৈর্য শিল হতে হবে। আপনি যতটা ধৈর্য শিল হবে এতে আপনার সফলতা ততই বারবে।

ফাস্ট কাজ হলো একটি নিশ সিলেক্ট করা। এখন প্রশ্ন হলো নিশ কি? নিশ বলতে সহজ ভাষায় আপনি কোন বিষয়ের উপর কাজ করতে চান বা ভিডিও তৈরি করতে চান। যেকোনো একটি নিশ আপনাকে সিলেক্ট করতে হবে। এই বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আপনি কোন বিষয় টি তে একটি YouTuber হতে চাচ্ছেন এই নিশ সিলেক্ট এর উপর কাজ করবে।

আপনি নিশ সিলেক্ট করার জন্য একটি রাত বেচে নিন। যে রাতে আপনার কোনো কাজ থাকবে না। এই রাত টা শুধু নিশ সিলেক্ট এর উপরেই ছেরে দিন। আপনি আপনার পড়ার টেবিল বা কাজ করার টেবিল এ বসে পড়ুন। সাথে এক গ্লাস পানি নিন। এবং মাথা ঠান্ডা রেখে ভাবুন কোন বিষয়ে আপনি ভালো দক্ষ বা পারদর্শি। আপনি এখানে একটি খাতা ব্যাবহার করতে পারেন। আপনি যে বিষয় গুলো ভালো পারেন তাই নিয়ে একটি ছোট্ট নোট তৈরি করে ফেলুন। এভার দেখুন কয়টা বিষয় এই নোটে জায়গা পেয়েছে। এবার প্রত্যেক টি বিষয়ে ভাবুন আরো গভির ভাবে আপনার আগ্রহ কোনটাতে বেশি। এবার আপনি নোটে থাকা একটি বিষয়কে নিশ সিলেক্ট করলেন। আপনার প্রথম ধাপ শেষ। এবার চলুন ২য় ধাপে এগিয়ে যাই।

২য় ধাপ

আপনি ইতিমধ্যেই একটি নিশ সিলেক্ট করে ফেলেছেন। তাই বুঝাই যাচ্ছে কোন বিষয় নিয়ে আপনাকে কাজ করতে হবে। এবার আপনাকে সিলেক্ট করতে হবে আপনার YouTube চ্যানেল এর নাম। আপনি যে নিশ সিলেক্ট করেছেন সেই রিলেটেড নাম দিতে হবে। ধরুন আপনার নিশ হলো টেক রিলেটেড তাহলে টেক রিলেটেড একটি নাম খুজুন। এখন আপনি নাম সিলেক্ট করার পর ৩য় ধাপে চলুন।

৩য় ধাপ

আপনি ইতিমধ্যেই ২ টি ধাপ শেষ করেছেন। এবং আপনার ইতিমধ্যেই YouTube চ্যানেল টির নাম রাখাও হয়েছে। এবার YouTube চ্যানেল টি খুলে ফেলুন। YouTube চ্যানেল খোলা খুবই সোজা প্রথমে YouTube অ্যাপ এ চলে যান আপনার মেইল অ্যাকাউন্ট এ এর লোগো তে ক্লিক করুন। এবার your channel অপশন এ ক্লিক করুন এবং আপনার নির্বাচিত নামটি দিন এবং ক্রিয়েট করে ফেলুন আপনার চ্যানেল টি।

৪র্থ ধাপ

আপনি এ পর্যন্ত ৩ টি ধাপে ৩ টি কাজ নিশ সিলেক্ট, নাম নির্বাচন এবং YouTube Channel টি খুলে ফেলেছেন। এবার আপনাকে কছু কাজ করতে হবে আপনার YouTube চ্যানেলটির জন্যে। ফাস্ট কাজ হলো লোগো তৈরি করা এবং কভার ফোটো তৈরি করা। আপনাকে আপনার নিশ অনুযায়ী একটি সুন্দর লোগো এবং কভার ফোটো তৈরি করে আপলোড দিতে হবে। এতে আপনার চ্যানেল টি সুন্দর দেখাবে। আপনি লোগো এবং কভার ফোটোর জন্য Canva অ্যাপ টি ব্যাবহার করতে পারেন এই অ্যাপ টি তে আপনি অনেক সুন্দর ডিজাইন করতে পারবেন।

৫ম ধাপ

আপনি প্রায় অনেক কিছুই করে ফেলেছেন এখন আপনাকে আসতে হবে মূল বিষয় এর উপর। কন্টেন্ট তৈরি করতে হবে এবার YouTube চ্যানেল এর জন্য। একটি YouTube চ্যানেল এর মুল উপাদান হলো কন্টেন্ট। এই কন্টেন্ট এই আপনাকে সফলতায় নিয়ে যাবে। আপনাকে অবশ্যই YouTube চ্যানেল টির জন্য ভালো এবং উচ্চ মানের কন্টেন্ট বানাতে হবে। আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে যে YouTube কপিরাইট আইন অনুযায়ী কারো ভিডিও কপি করে নিজের YouTube চ্যানেল এ আপলোড দেওয়া অপরাধ এতে আপনার চ্যানেল টিও বিনা নোটিশে সাস্পেন্ড করে দিতে পারে। কপিরাইট সম্পর্কে আরো তথ্য জানে নিচের আর্টিকেল টি পড়তে পারেন। এতে আপনি কপি রাইট সম্পর্কে ভালো ধারোনা পাবেন।

দেখে নিন YouTube কপিরাইট কি এবং কিভাবে বাচবেন এই কপিরাইট থেকে।

৬ষ্ঠ ধাপ

আপনাকে প্রতিনিয়ত ভালো ভালো কন্টেন্ট আপনার YouTube চ্যানেল এ আপলোড দিতে হবে এতে আপনার চ্যানেল আপডেট থাকবে। আপনি যদি প্রতিদিন ভিডিও আপলোড দেন তাহলে ভিসিটর রা ভিসিট করবে প্রতিনিয়ত। আপনি যদি প্রতিদিন কনটেন্ট আপলোড দিয়ে না থাকেন তাহলে আপনার YouTube চ্যানেল টি পছেনে পরে যাবে।

৭ম ধাপ

আপানকে অবশ্যই আপনার YouTube চ্যানেল টি SEO করতে হবে। SEO এর মাধ্যমে আপনার চ্যানেল টি যদি ফাস্ট পজিশনে আনতে পারেন তাহলে এখান থেক ভালো পরিমাণে ভিসিটর পাবেন প্রতিনিয়ত। এতে আপনি এই বিষয়ে অজ্ঞ হয়ে থাকলে অন্য কারী সহায়তা নিতে পারেন। এখন অনেক SEO এক্সপার্ট রয়েছে তাদের মাধ্যমে আপনি অল্প খরচেই আপনার চ্যানেল টির জন্য ভালো SEO করতে পারবেন।

৮ম ধাপ

ধৈর্য মানুষকে সফলতায় নিজে যায় তাই আপনাকে অবশ্যাই ধৈর্যশীল হতে হবে। আপনাকে লেগে থাকতে হবে। কখনো হাল ছাড়া যাবে না। আপনাকে মনে প্রানে বিশ্বাস করতে হবে যে আপনার দ্বারাই হবে। আপনিই পারবেন। তাই আপনাকে প্রতিনিয়ত আপনার YouTube চ্যানেল এর জন্য কাজ করতে হবে একটি মুহুর্তের জন্য হাল ছারবেনা। আর প্রতিনিয়ত আপনাকে নতুন নতুন কন্টেন্ট আপনার ভিসিটর দের জন্য বানাতে হবে।

৯ম ধাপ

আপনি উপরে ধাপ গুলো মেনে কাজ করতে থাকুন। আর আমরা সবাই একটা ভুল করে থাকি অনেক অনেক বড় বড় YouTube চ্যানেল গুলোর কমেন্টে আপনি আপনার YouTube চ্যানেল এর লিংক দিয়ে বলি এখানে প্রতিনিয়ত ভালো কিছু আপলোড করা হয়। এই কাজ গুলো থেকে অবশ্যই আপনাকে বিরত থাকতে হবে। আপনার ভিডিও বা কন্টেন্ট ভালো আপনি SEO এর মাধ্যামে ভালো ভিসিটর পাবেন। তাই অন্য কারো চ্যানেল এর ভিডিওতে নিজের চ্যানেল এর লিংক দেওয়া থেকে বিরত থাকুন এতে আপনার চ্যানেল টি সুরক্ষিত থাকবে।

আশা করি ওপরের ধাপ গুলো সঠিক ভাবে মানতে পারলে আপনি খুব তারাতারি আপনার YouTube চ্যানেল কে নিয়ে সফলতার চূড়ায় পৌঁছে যাবেন। এতে আপানেক অবশ্যই ধৈর্য শিল হতে হবে। আজকে এ পর্যন্ত আগামী টিউটোরিয়াল এ দেখা হবে নতুন কোনো টপিক নিয়ে। সে পর্যন্ত ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন আমাদের সাইটের সঙ্গে যুক্ত থাকুন। আল্লাহ হাফেজ।

admin

আমি সাগর। আমি একজন ব্লগার এবং ইউজার ইন্টারফেজ ডিজাইনার। আমি প্রতিনিয়ত চেষ্টা করি আমার ব্লগের মাধ্যমে নতুন নতুন তথ্য শেয়ার করতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button